পোস্টগুলি

বৈশিষ্ট্যযুক্ত পোস্ট

My photography 2

ছবি

My photography

ছবি

এই ১০টি অনিয়ম করলে নষ্ট হয়ে যাবে কিডনি !

১. প্রস্রাব আটকে রাখা।
.
২. পর্যাপ্ত পানি পান না করা।
.
৩. অতিরিক্ত লবন খাওয়া।
.
৪. যেকোন সংক্রমনের দ্রুত চিকিৎসা না
করা।
.
৫. মাংস বেশি খাওয়া।
.
৬. প্রয়োজনের তুলনায় কম খাওয়া।
.
৭. অপরিমিত ব্যথার ওষুধ সেবন।
.
৮. ওষুধে সেবনে অনিয়ম।
.
৯. অতিরিক্ত মদ খাওয়া।
.
১০. পর্যাপ্ত বিশ্রাম না নেওয়া।

হটাৎ স্ট্রোক?,,,, জেনে নিন কি করবেন

ছবি
চীনের অধ্যাপকরা বলেছেন-
স্ট্রোক অাজ অকালে কেড়ে নিচ্ছে
মানুষের প্রান৷ যদি দেখেন
কারো স্ট্রোক হচ্ছে তাহলে
রোগীকে বাঁচানোর জন্য আপনাকে
জরুরীভিত্তিতে নিম্নলিখিত
পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে-
যখন কেউ স্ট্রোকে আক্রান্ত হয় তখন
তার রক্তচাপ বেড়ে যায়, মস্তিষ্কে
রক্তক্ষরন হয় ও মস্তিষ্ক কোষ ধীরে
ধীরে প্রসারিত হয়। এসময় একজন
মানুষের জরুরী ভিত্তিতে ফার্স্ট
এইড এবং বিশ্রামের প্রয়োজন হয়।
যদি স্ট্রোকে আক্রান্ত রোগী
দেখেন তবে তাকে তাৎক্ষনিক
সরানো যাবে না কারন মস্তিষ্কে
রক্তক্ষরণ বিস্ফোরিত হতে পারে,
এটা ভাল হবে যদি আপনার
বাড়ীতে পিচকারি সুই থাকে,
অথবা সেলাই সুই থাকলেও চলবে,
আপনি কয়েক সেকেন্ডের জন্য আগুনের
শিখার উপরে সুচটিকে গরম করে
নেবেন যাতে করে এটি জীবাণুমুক্ত
হয়৷
তারপর রোগীর হাতের ১০ আঙ্গুলের
ডগার নরম অংশে ছোট ক্ষত বা বিদ্ধ
করতে এটি ব্যবহার করুন। এমনভাবে
করুন যাতে প্রতিটি আঙুল থেকে
রক্তপাত হয়, কোন অভিজ্ঞতা বা
পূর্ববর্তী জ্ঞানের প্রয়োজন নেই।
কেবলমাত্র নিশ্চিত করুন যে আঙ্গুল
থেকে যথেষ্ট পরিমাণে রক্তপাত
হচ্ছে কি না। এবার ১০ আঙ্গুলের
রক্তপাত চলাকালীন, কয়েক
মিনিটের জন্য অপেক্ষা করুন
দেখবেন ধীরে ধীরে রো…

স্মৃতি শক্তি বাড়াতে ৫ টি কার্যকারী টিপস

ছবি
চেনা লোকের নামটি
হঠাত্ করেই মনে করতে
পারছেন না? কোথায় কী
রাখছেন, পরক্ষণেই ভুলে
যাচ্ছেন? বই পড়ে মনে
থাকছে না? কাল কী
খেয়েছিলেন, আজ মনে
করতে বেগ পেতে হচ্ছে?
নিশ্চিত ভাবে আপনার
স্মৃতিবিভ্রম হচ্ছে। কী
করে চাঙ্গা রাখবেন
আপনার মস্তিষ্কের
কোষকে? স্মৃতিশক্তি
বাড়ানোর ৫টি টিপস
আপনার জন্য।
১. ব্যায়াম করুন, চাঙ্গা
থাকুন
ব্যায়াম বা দৌড়ঝাঁপে
শুধু শরীরই চাঙ্গা থাকে
না, মস্তিষ্কও চনমনে
থাকে। তাই সকালটা
ব্যায়াম দিয়ে শুরু করলে,
এর চেয়ে ভালো আর কিছু
হয় না। কাজে ঠিকমতো
মনোনিবেশও করতে
পারবেন। দেওয়ালে
বারবার বল ছুড়ে ক্যাচ ধরুন,
এতেও মনোযোগ বাড়বে।
২. রাতে ভালো করে
ঘুমোতে হবে
মস্তিষ্ক বা স্মৃতিশক্তিকে
চাঙ্গা রাখতে রাতে ঘুম
অত্যন্ত জরুরি। যাঁরা এখনই
স্মৃতিবিভ্রমে ভুগছেন,
রোজ ভালো করে ঘুমনোর
উপর জোর দিন। রাতে ৭
থেকে ৯ ঘণ্টা ঘুমোতেই
হবে। শুতে যাওয়ার অন্তত
একঘণ্টা আগে টিভি দেখা
বন্ধ করতে হবে। ওইসময়
স্মার্টফোন বা ট্যাব
নিয়েও ঘাঁটাঘাঁটি করা
যাবে না। রাতে যাতে
ঘুম ভালো হয়, তার জন্য
সারাদিনে ক্যাফেইন ও
অ্যালকোহল কম খেতে
হবে।

ফিটনেস ধরে রাখার উপায়

ছবি
হপ্রয়োজনীয় খাবার খান
প্রতিদিন একই ধরনের খাবার খাওয়া
উচিত নয়। প্রতিদিনের খাবারের
তালিকায় বিভিন্ন ভিটামিন,
মিনারেল এবং প্রোটিনযুক্ত
খাবার রাখুন। মনে রাখবেন,
খাবারের গুণগত মানই আসল। পরিমাণ
বিষয় নয়। যেমন প্রোটিন শরীরের
ওজন না বাড়িয়ে শক্তি সরবরাহ করে,
যা কোষের জন্য খুব প্রয়োজনীয়।
হতাজা ফল এবং শাকসবজি খান
প্রতিদিন খাবারের তালিকায় শিম,
মটরশুঁটি, বরবটির মতো আঁশযুক্ত সবজি ও
তাজা ফল থাকা খুব জরুরি। এসব তাজা
ফল ও সবজি ডায়াবেটিস ও হৃদরোগ
প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে।
বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থার মতে, দিনে
কয়েকবার ফল এবং সবজি খাওয়া
উচিত। এসব খাবার হাঁপানি এবং
অ্যালার্জির ঝুঁকি থেকেও রক্ষা করে।
হফাস্টফুডকে না বলুন
দোকানে তৈরি ফাস্টফুড বা
রেডিমেট খাবার খাওয়া
কোনোভাবেই উচিত নয়। এসব
খাবারে অতিমাত্রায় চিনি এবং
শরীরের জন্য ক্ষতিকর উপাদান থাকে।
শিশুদের জন্য এসব খাবার বিপজ্জনক।
তাদের হাঁপানির ঝুঁকি ৪০ শতাংশ
পর্যন্ত বাড়িয়ে দেয়। তাই ছোটকাল
থেকে শিশুদের এসব খাবার থেকে
দূরে রাখা উচিত।
হমস্তিষ্কের জন্য খাবার
মানুষের মস্তিষ্কের বিকাশের জন্য
প্রয়োজন শর্করা এবং গ্গ্নুকোজ। তাজা
ফল, রুটি, মিষ্টি আলু, নুডুলস, মাছ-মাংস,
কাঠবাদা…

দৃষ্টি শক্তি বাড়াতে ব্যায়াম

ছবি
বেশির
ভাগ
লোকের ধারণা,
গ্লুকোমার নিরাময় হলো
বিভিন্ন ধরনের ওষুধ। এ
ছাড়া আরেকটি উপায়
হলো অপারেশন।
ইতোমধ্যে চোখের
ডাক্তারেরা আরেক নতুন
ধরনের চিকিৎসার কথা
বলতে শুরু করেছেন।
গবেষণায় দেখা গেছে,
সপ্তাহে চার দিন ৩০
মিনিট করে হাঁটা
গ্লুকোমা রোগ উপশমের
ভালো একটি পন্থা।নিউ
ইয়র্ক শহর ভিত্তিক
গ্লুকোমা ফাউন্ডেশনের
ডিরেক্টর রবার্ট রিচ
এমডি চোখকে তুলনা করেন
সিঙ্কের সাথে। চোখ যখন
ভালো থাকে তখন রক্ত
সঞ্চালন থাকে
স্বাভাবিক। ‘আইরিশ’
ঠিকমতো পুষ্টি পায়।
রক্ত চলাচল ব্যাহত হলে
চোখের তরল এর পেছনের
চেম্বারে জমা হয়। সঞ্চিত
তরল সম্মিলিত ভাবে
চোখের দুর্বল নার্ভে
প্রচণ্ড চাপ দেয়। অপটিক
নার্ভ দর্শন অনুভূতি
মস্তিষ্কে প্রেরণ করে। এ
নার্ভ ছিঁড়ে গেলে নার্ভ
মস্তিষ্কে প্রয়োজনীয়
অনুভূতি পাঠাতে ব্যর্থ হয়।
ফলাফল আংশিক বা পূর্ণ
অন্ধত্ব। অপারেশন বা
প্রেসক্রিপশন ড্রপ এখনো
চুরোগ নিরাময়ের উপায়।
নতুন গবেষণা বলে,
এরোবিক ব্যায়াম রোগ
উপশমের খুব ভালো উপায়
হতে পারে।ড. রিচ বলেন,
‘এরোবিক ব্যায়াম
চোখের ওপর চাপ কমাতে
পারে।’ তার রোগীরা
টেনিসখেলে, হাঁটে
কিংবা নিয়মিত সাঁতার
কাটে। তিনি আরো বলেন,
‘বিভিন্ন ধরনের ব্যায়াম
বা খেলাধুলা চোখের
রক্ত স…